নভেম্বর-ডিসেম্বর ‘১৬

সম্পাদকীয়

মাত্র চার দিন আগে, মানে ২৬শে নভেম্বর,২০১৬, দুপুরবেলায় বিশ শতকের অবসানের বার্তা রটে গেল। এক স্বপ্নের ফেরিওয়ালার মৃত্যু। আর দু’হপ্তা আগে, স্বপ্নের নভেম্বরে, এই ভারতে ভরসন্ধ্যেতে ঘোষিত হলো অর্থনৈতিক জরুরি অবস্থা। আর লোপাট হল নাজিব। পৃথিবীর ‘সবপেয়েছির দেশে’ শোনা গেলো ফ্যুয়েরেরের স্বর। ২০১৬-র নভেম্বর স্বপ্ন ভাঙ্গার মাস। কোনো আত্মবিশ্বাসী তর্জনী তুলে হাঃ হাঃ হেসে উঠে, সভ্যতাকে/ইতিহাসকে আটক করে বলতেই পারেন আমি ছাড়া আর কোথাও যাবার জো নেই, যেমন কিনা বলেছিলেন ’৯১- এ। আমরা স্মিত হেসে তাকে বলব, ইতিহাস আমাদের মুক্ত করবে, মুক্তি দেবে সব আটক থেকে, কারাগার থেকে। সে ইতিহাস লিখবে আমাদের রান্নাঘর, ফালাকরা আর কুর্দিস্তানের মহিলা, যোদ্ধারা। ফ্যুয়েররদের জবাব আসবে কারখানা আর মেঠো আল থেকে।

স্বপ্নের নভেম্বরে ভেঙ্গে থাকা মানুষের স্বপ্নের কথাই বলব আমরা। কোরাসে গেয়ে উঠব, হোক না তা বেসুরো,ইতিহাস আমাদের মুক্ত করবেই।

 

সূচিপত্র

ফোকাস

রান্না, রান্নাবাটি, খেলা, সংসার / শ্রম, অবসর, মূল্য, বাজার – মধুশ্রী বসু

প্রবন্ধ

জীবন মানে: ‘ধারাবাহিক’ উৎসব আর বিনোদন – বীথিকা  সাহানা

কুর্দিস্তান- একটি প্রতিবাদী স্পর্ধা – সন্দীপ মুন্সী

আরেকটি প্রভাতের ইশারায় – সৌম্যজিৎ রজক

আলোচনা/ সমালোচনা

ব্যাঙ্কসির ছবি: প্রেম ও দ্রোহের নয়া মানবিক ভাষ্য  – সায়ন্তন সেন

পিঙ্ক ও পার্চ্‌ড: স্বপ্নপূরণের দুই অধ্যায় – সর্বজয়া ভট্টাচার্য